• May 23, 2021

JavaScript Basics (জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যাসিক)

জাভাস্ক্রিপ্ট(JavaScript ) ফ্রেমওয়ার্কের আকর্ষণীয় দিকঃ

১। সহজঃ আপনার যে কাজ করতে বছর থেকে বছর চলে যেতে পারে সেগুলা ফ্রেমওয়ার্ক  সহজ করে দেয়। সেক্ষেত্রে আপনার পেছনের অনেক কাজ করতে হয় না। অনেককিছু রেডিমেট পাওয়া যায়। তাতে সুবিধা হলো ব্যাসিক কাজগুলা না করে আপনি আপনার মেইন আইডিয়াতে কাজ করতে পারবেন। মানে আরো কমপ্লেক্স আইডিয়াতে সময় দিতে পারবেন আরো ভালো লেভেলের অ্যাপ্লিকেশন বানাতে পারবেন। JavaScript এরকমই একটি ফ্রেমওয়ার্ক।

২। সেইফঃ ডেভেলপার কমিউনিটি অনেক বিশাল হওয়ায় অলমোস্ট সব ধরনের বাগই (bug) ধরা পড়ে এবং ফিক্স করা হয়ে যায়। তাই পপুলার ফ্রেমওয়ার্কগুলো অনেকটাই সেইফ।

৩। ওপেন সোর্সঃ সবচেয়ে বড় কথা হলো বেশির ভাগ ফ্রেমওয়ার্ক ই একদম ওপেন সোর্স তাই এরজন্যে এক্সট্রা পে করতে হয় না বা আপনার অ্যাপ্লিকেশন সম্পূর্ন আপনারই।

ব্যাসিক ক্রোম ডেভেলপার কন্সোল

ক্রোমের ডেভেলপার কন্সোল আসলে অনেক পাওয়ারফুল। এর অনেকগুলা কাজের মধ্যে জাভাস্ক্রিপ্ট কোড রান করাটাও একটা কাজ। ক্রোমের কন্সোলের সাহায্যে সহজেই আপনি লাইন বাই লাইন কোড লিখে লিখে রান করতে পারবেন।

প্রথমে আপনার কম্পিউটারে একটা ফোল্ডার করুন যেখানে জাভাস্ক্রিপ্ট প্র্যাক্টিস করবেন। সেখানে ব্যাসিক একটা html এবং js ফাইল ক্রিয়েট করুন।

html ফাইল এ  js ফাইল link করে নিন।

এবার আপনার এইচটিএমএল ফাইলটা খুলে ফেলুন ক্রোম বা ফায়ারফক্স  দিয়ে। জাভাস্ক্রিপ্টের জন্য সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয় ক্রোম বা ফায়ারফক্সের ডেভেলপার কন্সোল।

কন্সোল খোলার শর্টকাট কিঃ ctrl+shift+I

আমরা চাইলে কন্সোলেই কাজ গুলা করতে পারি। কন্সোলে যোগঃ

Javascript

কন্সোলে Text দেখানোর জন্য

console.log('Hey Welcome you to JavaScript!');

জাভাস্ক্রিপ্ট(Javascript) ভেরিয়েবল

ভ্যারিয়েবল হচ্ছে একটা পাত্রের মতো, যেখানে আপনি ‘কিছু’ রাখতে পারবেন। জাভাস্ক্রিপ্ট এ ‘কিছু’ বলতে অনেককিছু। আপনি চাইলে নাম্বার থেকে শুরু করে স্ট্রিং, অবজেক্ট, এমনকি ফাংশনও ভ্যারিয়েবল এর মধ্যে সেইভ করে রাখতে পারবেন।

ভেরিয়েবল ডিক্লেয়ার করার নিয়ম হচ্ছে শুরুতে var এবং ভেরিয়েবলের নাম।

যেমনঃ Var a=”Welcome to Tech World”

(JavaScript )ভেরিয়েবলের রুলসঃ

১।জাভাস্ক্রিপ্ট এর রিসার্ভড কীওয়ার্ড ইউজ করতে পারবেন না।

Reserved Keywords

আর এগুলা কোনোভাবে অবজেক্ট, প্রোপ্রার্টিজ এর সাথে সম্পর্ক থাকায় এগুলা এড়িয়ে চলাই ভালোঃ

Javascript keyword

২। ভ্যারিয়েবলের নাম অক্ষর দিয়ে শুরু হতে পারবে, তবে নাম্বার,স্পেশাল ক্যারেক্টার !, @, #, %, ^, &, *, (, ) দিয়ে শুরু হতে পারবে না।কিন্তু ‘_’(আন্ডারস্কোর) ও ‘$’ (ডলার সাইন) ইউজ করে শুরু করতে পারবেন।

৩। ভ্যারিয়েবলের নামের মাঝখানে স্পেস ইউজ করা যাবে না। যদি এমন কোনো নাম নিতে হয় যেটার মাঝখানে স্পেস দরকার তাইলে আপনি ক্যামেলকেস ফরম্যাট এ(পরে আসছি বিস্তারিত) বা দুইটা ওয়ার্ড এর মাঝখানে ‘_’ (আন্ডারস্কোর) ইউজ করতে পারেন। কিন্তু স্পেস কোনোভাবেই অ্যালাউড না।

৪। জাভাস্ক্রিপ্ট এ ভ্যারিয়েবল এর নাম কেস-সেনসিটিভ। মানে myName এবং Myname বা myname এক না। আপনি ঠিক বড় হাতে ছোটো হাতে যেভাবে ভ্যারিয়েবলের নাম নিবেন সেটাকে অ্যাক্সেস করতে হলে ঠিক সেভাবেই লিখে অ্যাক্সেস করতে হবে। এখানে myName এবং Myname দুইটা সম্পূর্ন আলাদা আলাদা দুইটা ভ্যারিয়েবল।

Javascript ডাটা টাইপঃ

জাভাস্ক্রিপ্ট এ ব্যাসিকিলি দুই ধরনের ডাটা টাইপ আছেঃ

১। প্রিমিটিভ ডাটা টাইপ

২। নন প্রিমিটিভ/রেফারেন্স ডাটা টাইপ

প্রিমিটিভ ডাটা টাইপঃ

প্রিমিটিভ টাইপের ডাটাগুলো তে ভ্যালু সরাসরি স্টোর করা থাকে। আমরা জানি জাভাস্ক্রিপ্ট এ সবই অবজেক্ট। যেমনঃ

(i) নাম্বারঃ নরমাল নাম্বার থেকে শুরু করে যেকোনো ধরনের নাম্বার। দশমিক ও হতে পারে

var aNumber = 10;var anotherNumber = 10.10; (ii) স্ট্রিংঃ টেক্সট নাম্বার সহ। মানে ক্যারেক্টার এর সিকুয়েন্স। স্ট্রিং অবশ্যই ‘ ’ অথবা “ ” এর ভিতরে থাকবে। ডাবল (“”) নাকি সিঙ্গেল (‘ ’) ইউজ করবেন সেটা একদমি আপনার ইচ্ছা। নাম্বারও যদি এভাবে ডাবল বা সিঙ্গেল এর ভিতরে লিখেন তাহলে সেটাও স্ট্রিং হিসেবে গণ্য হবে।
var text = 'I want to say something';var text2 = "This is exactly the same way,
 but use either one";
var isString = '10'; //is also a string, not a number (iii) বুলিয়ানঃ সত্য নাইলে মিথ্যা

true, false

। সব ছোটো হাতের। বড় হাতের বা ক্যাপিটেলাইজড ভ্যালু ভুল দেখাবে। কোনো ‘ ’ বা “ ” নেই।
(iv) আন্ডিফাইন্ডঃ যখন আপনি ভ্যারিয়েবল ডিক্লেয়ার করেন, কিন্তু কোনো ডাটা ঐটাতে রাখা হয় না, 
তখন বাই ডিফল্ট

undefined

হয়ে থাকে সেটা।
(v)ঃ নালঃ এটার কোনো অস্তিত্ব নাই। কিন্তু আন্ডিফাইন্ড না। মানে আপনি আপনার ভ্যারিয়েবলে কিছু রাখতে
 চাচ্ছেন না, কিন্তু আবার এটা আন্ডিফাইন্ড ও রাখতে চাচ্ছেন না। null ই হবে, Null বার NULL ভুল!

নন-প্রিমিটিভ/রেফারেন্স ডাটা টাইপঃ

নন-প্রিমিটিভ ডাটা টাইপের ভ্যালু সরাসরি সেইভ করা থাকে না। বরং ভ্যালুর রেফারেন্স সেইভ থাকে। আর এই টাইপের ডাটা অবজেক্ট। মানে এদেরও আবার অনেক প্রোপ্রার্টি আছে। যেমনঃ

(i) অ্যারে

(ii) অবজেক্ট

(iii) ফাংশন

(JavaScript )কনকাটিনেশনঃ

এবার আসি আরো কিছু ব্যাসিক টপিক নিয়ে। কনকাটিনেশন বা কয়েকটা ডাটা একসাথে অ্যাড করতে চাইলে জাভাস্ক্রিপ্ট এ ‘+’ ইউজ করা হয়ঃ

var a= "Hello"+"World"; 

কমেন্টঃ

১। সিঙ্গেল লাইন কমেন্টঃ

একই লাইনের কমেন্ট হলে ভা আপনার কোডের শেষে কিছু লিখতে চাইলেঃ

var myName = 'Anwar Hossain Bappy'; // your comment here

২। মাল্টি-লাইন কমেন্টঃ

কয়েকটা লাইনে কমেন্ট লিখতে চাইলেঃ

/*   Your Comments here*/

Cool Javascript example part – 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *